কাঁচপুরের ভূমিদস্যু বকুল গংদের বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ক্রয়কৃত সম্পত্তি দখলের অভিযোগ

কাঁচপুরের ভূমিদস্যু মােসাদ্দেক হোসেন বকুল গংদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

ডেস্ক রিপোর্ট: সোনারগাঁও উপজেলা কাঁচপুরের ভূমিদস্যু মােসাদ্দেক হোসেন বকুল গংদের বিরুদ্ধে সোনারগাঁও থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভূক্তভোগী নারী শিরিনা বেগম । গত ( ৭ অক্টোবর ) সোনারগাঁও থানায় সোনারগাঁও উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের বেহাকৈর এলাকার আঃ আজিজের ছেলে মোসাদ্দেক হোসেন বকুল, মৃত কলিমুদ্দিনের ছেলে সালাম উল্লাহ, শাহাদুল্লাহর ছেলে ফারুক ও কবির হোসেন, হাতেম আলীর ছেলে আঃ মজিদ, শাহজাহানের ছেলে রুবেল, সোনাপুর এলাকার মৃত আঃ সামাদের ছেলে আলাউদ্দিনসহ অজ্ঞাতনামা ২ থেকে ৩ জনের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ দায়ের করেন তিনি ।

অভিযোগে উল্লেখ করেন, ব্যাপক ক্ষমতাযুক্ত অপ্রত্যাহারযােগ্য পাওয়ার অব এ্যাটর্নী (পন মূল্য ব্যতিত) দলিল নং-২৫২৭ । গত বছরের ২৫ ফেব্রুয়ারি থেকে আমি মালিক হইয়া ভােগ দখল করিয়া আসিতেছি। কয়েক মাস যাবৎ বকুল গং আমার সম্পত্তি দখল করার পায়তারা করতে থাকে এবং বিভিন্ন ভয়ভীতিসহ হুমকি প্রদান করছে । গত ৭ অক্টোবর সকাল ১০ টার সময়ে বেহাকৈর সাকিনে বকুলগং আমার তফসিলভুক্ত সম্পত্তির সামনে আসিয়া সম্পত্তি দখল করার মহড়া দিতে থাকে এবং আমাদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে । এছাড়াও আমাদের বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখাইয়া প্রকাশ্যে হুমকি দেয় । সম্পত্তি দখলে বাঁধা দিলে কেহ গেলে আমাদের মারধরসহ খুন জখম ফেলবে বলে হুমকি দেয় । এমনকি মিথ্যা মামলা দিয়া হয়রানী করবে তাদের এবং জোর পূর্বক সম্পত্তি দখল করে নিবে বলে হুমকি দেয়।

জাগাগেছে, কাঁচপুর এলাকার মোসাদ্দেক হোসেন বকুল গংদের বিরুদ্ধে জোরপূর্বক জমি দখল ও আধিপত্য বিস্তারের অভিযোগে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে । বেহকৈর মৌজার অনেক নিরীহ অসহায় মানুষের জমি দখল করে অবৈধভাবে বাউন্ডি দিয়ে দখল করারও অভিযোগ রয়েছে বকুল গংদের বিরুদ্ধে । এ নিয়ে এলাকায় অনেক শালিস বৈঠক হয়েছে ।

এবিষয়ে মােসাদ্দেক হোসেন বকুল বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সম্পূর্ন মিথ্যা । আমরা জায়গা কিনে সেই জায়গায় বালু দিয়ে ভরাট করছি । আর শিরিনা নামের ওই মহিলারাও আমরা চিনি না । সে আমাদের নামে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করছে ‌ ।

এবিষয়ে সোনারগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি ) রফিকুল ইসলাম বলেন, তদন্ত করে আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবো ।

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

আপডেট

0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x